Scroll to top
Get In Touch
11 / D-1, Section 10
Paris Road, Mirpur
Dhaka – 1216
info@webprobd.com
Ph: +880 161-555-8800, 096 3816 3107
Work Inquiries
work@ohio.clbthemes.com
Ph: +1.831.306.672

কম্পিউটার বা ল্যাপটপের স্পিড বাড়ান

আমরা যখন নতুন একটা ল্যাপটপ/ডেস্কটপ কম্পিউটার ক্রয় করি, কিছু দিন খুব ভালো কাজ করে। যতই দিন পার হতে থাকে আমাদের কম্পিউটারের স্পীড ধীরে ধীরে কমতে থাকে। দীর্ঘ দিন ব্যবহার করার ফলে ধীরে ধীরে গতি কমে আসবে এটাই স্বাভাবিক। কারণ হার্ডওয়্যার এর কার্য ক্ষমতা ব্যবহারে ফলে কমতে থাকে। অনেক ক্ষেত্র বেশি স্লো হয়ে যায় আমাদের ভুলের কারণে।

নিম্নোক্ত গুরুত্ত্বপূর্ণ কাজগুলো করে আমাদের কম্পিউটারে গতি বাড়াতে পারি।

Defragment and Optimize Drive

উইনডোজ কম্পিউটারের জন্য খুব গুরুত্ত্বপূর্ণ টুলস। এর সাহায্যে হার্ড ডিস্ক এর ডাটাকে কমপ্রেস করে সাজিয়ে রাখা যায়, ফলে কম্পিউটারের গতি বৃদ্ধি পায়।

Windows Start >Defragment and Optimize Drive ক্লিক করুন। ধাপে ধাপে সবগুলো ড্রাইভে কাজটি করুন।

Disk cleanup 

প্রতিদিন কম্পিউটার ব্যবহার করার ফলে অনেক অপ্রয়োজনীয় ফাইল কম্পিউটারে জমা হতে থাকে। এসব Junk ফাইল কম্পিউটার গতি অনেক কমিয়ে দেয়। Disk cleanup টুলস্ ব্যবহারে মাধ্যমে এসব Junk ফাইল মুছে ফেলতে পারেন। অথবা C-Cleaner সফট্‌ওয়ারটি ব্যবহার করতে পারেন। এখান থেকে ডাউনলোড করুন

Windows Start> Disk CleanUp একে একে সকল ড্রাইভ ক্লিন করুন। C -drive ক্লিন করা বেশি জরুরী। কারণ সি-ড্রাইভে Windows Os থাকে। এই কাজটি মাঝে মাঝে করতে হবে।

SSD / M.2 ব্যবহার করুন 

হার্ডিডস্ক প্রযুক্তিটি পুরোনো। প্রসেসর বা র‍্যাম যতো বেশি হক না কেন হার্ড ডিস্কের কারণে আপনি প্রত্যাশিত গতি পাবেন না। কারণ হার্ড ডিস্ক এর চাকতি ঘুরে ঘুরে ডাটা সরবরাহ করে। একটি হার্ডিডস্ক এর গতি ৫২০০ আরপিএম থেকে- সর্বৌচ্চ ৮, ০০০ আরপিএম। আপনার পিসি যতই হাই কনফিগারেশনের হোক না কেন। হার্ডডিস্ক স্লো হওয়াতে আপনি স্পীড পাবেন না। SSD/M.2 লাগালে অনেক ফাস্ট হবে।

পাইরেটেড সফট্‌ওয়ার ব্যবহার না করা 

পিসিতে যদি আপনি লাইসেন্স/অরিজিনাল সফট্‌ওয়ার ব্যবহার করেন ভালো পার্ফমেন্স পারেন। ভাইরাসে আক্রান্ত হবার ভয় থাকে না।

 

প্রোগ্রাম আপডেট করুন ও অপ্রয়োজনীয় সফট্‌ওয়ার আনইনস্টল করুন

কম্পিউটার থেকে অপ্রয়োজনীয় সফট্‌ওয়ার আনইনস্টল করে গতি বাড়ানো যায়। অনেক বেশি প্রোগ্রাম থাকলে তা র‍্যাম ও প্রসেসর এর উপর অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি করে যা কম্পিউটারের গতি কমিয়ে দেয়। অনেক সময় পিসি হ্যাং করে। প্রয়োজনীয় সফট্‌ওয়ার গুলো আপডেট করে ব্যবহার করুন।

Windows Start.>Control Panel>Programs And Features থেকে অপ্রয়োজনীয় সফট্‌ওয়ার আনইনস্টল করুন। অতিরিক্ত সফটওয়ার আপনার কম্পিটারের গতি অনেক কমিয়ে দেয়।

 

অটো স্টার্ট প্রোগ্রাম বদ্ধ করে কম্পিউটার ফাস্ট করুন

এই সমস্যায় অনেক বেশি ব্যবহারকারী ভোগে থাকেন। অনেক কম্পিউটার চালু হতে সময় নেয়। এর মূল কারণ আপনার কম্পিউটার যখন চালু হয় তখন অনেক প্রোগ্রাম অটোমেটিক চালু হয়ে যায়। এর মধ্যে অনেক গুলো প্রোগ্রাম অপ্রয়োজনীয়। এই অপ্রয়োজনীয় সফট্‌ওয়ার গুলো প্রসেসর ও র‍্যাম এর উপর চাপ সৃষ্টি করে ফলে পিসি চালু হতে বেশি সময় নেয়। আমি নিজে অনেক দিন সমস্যায় ছিলাম। ধাপে ধাপে কিছু কাজ করলে স্টার্টআপ প্রোগ্রাম বন্ধ করে পিসি ফাস্ট করা যায়। কাজগুলো একবার করলেই হবে। বার বার করার প্রয়োজন নেই।

Post a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *